July 22, 2024 | Monday | 2:38 PM

‘ক্ষমা চাইতে হবে সলমনকে, তাহলে…’, বিষ্ণোই গ্যাংয়ের নয়া নিদান!

0

গ্যালাক্সি অ্যাপার্টমেন্টে গুলি চালানোর ঘটনার পর থেকে একের পর এক গ্রেপ্তারির ঘটনা ঘটছে। এই ঘটনার সাথে জড়িত বলে মনে করা হচ্ছে বিষ্ণোই গ্যাংকে।

এই পরিস্থিতিতে, বিষ্ণোই গ্যাংয়ের পক্ষ থেকে নতুন নিদান দেওয়া হয়েছে।

অল ইন্ডিয়া বিষ্ণোই সোসাইটির প্রেসিডেন্ট দেবেন্দ্র বুদিয়া জানিয়েছেন, যদি সলমন খান ক্ষমা চান তবে তারা তাঁকে ক্ষমা করার কথা ভাবতে পারেন।

দেবেন্দ্র বুদিয়ার দাবি,

  • সলমনকে মন্দিরে এসে ক্ষমা চাইতে হবে।
  • ভবিষ্যতে আর কোনও ভুল করবে না বলে শপথ নিতে হবে।
  • বন্যপ্রাণ রক্ষার ব্রতী হতে হবে।

যদি সলমন এই শর্তগুলি পূরণ করেন, তাহলে বিষ্ণোই সমাজ তাঁকে ক্ষমা করার কথা ভাববে বলে দেবেন্দ্র বুদিয়া জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য যে,

  • ২০২০ সালে, সলমন খানকে কৃষ্ণসার হরিণ শিকারের অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল।
  • বিষ্ণোই সম্প্রদায় কৃষ্ণসার হরিণকে পবিত্র মনে করে।
  • এই ঘটনার পর থেকেই বিষ্ণোই গ্যাং সলমন খানের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়েছে।

এই নতুন নিদানের ফলে সলমন খানের ভবিষ্যৎ কী হবে তা এখনও অনিশ্চিত।

তবে এটা স্পষ্ট যে এই ঘটনাটি বলিউড এবং বিষ্ণোই সম্প্রদায়ের মধ্যে উত্তেজনা আরও বাড়িয়ে তুলবে।

গত পয়লা বৈশাখে সলমন খানের বাড়িতে হামলার ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে বিষ্ণোই গ্যাং এর বিরুদ্ধে তদন্ত চলছে। এই ঘটনার পর থেকেই বিষ্ণোই সম্প্রদায়ের কাছে ক্ষমা চেয়ে মুক্তির আশায় ছিলেন সলমন খান।

তবে এখন নতুন তথ্য জানা গেছে। অল ইন্ডিয়া বিষ্ণোই সোসাইটির প্রেসিডেন্ট দেবেন্দ্র বুদিয়া স্পষ্ট করে বলেছেন, ক্ষমা চাইলেই যথেষ্ট নয়। সলমনকে আরও কিছু পদক্ষেপ নিতে হবে। দেবেন্দ্র বুদিয়ার দাবি, সলমনকে মন্দিরে গিয়ে বিষ্ণোই সম্প্রদায়ের কাছে علنا ক্ষমা চাইতে হবে। ভবিষ্যতে আর কোনোদিন এই ধরনের ভুল করবেন না বলে শপথ নিতে হবে। বন্যপ্রাণ রক্ষার জন্য কাজ করতে হবে।

যদি সলমন এই শর্তগুলো পূরণ করেন, তাহলেই বিষ্ণোই সমাজ তাকে ক্ষমা করার কথা বিবেচনা করবে। এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত ছয়জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ধৃতদের মধ্যে একজনের মৃত্যুও হয়েছে হাজতে।

এই ঘটনার জের ধরে বলিউডে ব্যাপক চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। অনেক তারকা ও সংস্থা এই ঘটনার নিন্দা জানিয়েছেন। তারা দাবি করছেন, আইনের শাসন সকলের জন্যই সমান।

আইন প্রয়োগকারী সংস্থা এই ঘটনার তদন্ত দ্রুত এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। তারা আশা করছেন, দ্রুতই অপরাধীদের গ্রেপ্তার করা যাবে।

Advertise

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *