May 20, 2024 | Monday | 5:42 AM

সৌমিত্র-সুজাতার ভোটযুদ্ধ

0

রাজনীতি কখন কোনদিকে মোড় নেয় তা বোঝাই দুষ্কর। চাণক্য পন্ডিতও বলতে পারেন না। বন্ধু কখন শত্রুতে পরিণত হয় তাও আন্দাজ করা যায় না। শত্রু কখন বন্ধুতে গড়ায় তা বোঝাও মুশকিল। রাজনীতির ক্ষেত্রে এসব আকছার ঘটে থাকে।
২০১৯ সালে একে অপরের জন্য লড়াই করা। আবার দুটি পথ দুটি দিকে বেঁকে যাওয়া। ভালোবাসার বন্ধন আইনি জটিলতায় জড়িয়ে যাওয়া। কান্না ভেজা চোখ। বন্ধন থেকে শেষ পর্যন্ত বিচ্ছেদ। না এটা কাব্য নয়। সরাসরি রাজনীতির অঙ্গনে নজর দিতেই হবে । বর্তমান রাজনৈতিক আবহে তাই বিষ্ণুপুর লোকসভা আসনটির দিকে সবারই নজর থাকছে। সৌমিত্র-সুজাতার ভোটযুদ্ধকে কেন্দ্র করে বিষ্ণুপুর লোকসভা হয়ে উঠেছে নজরকাড়া কেন্দ্র। রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন,এই লোকসভা আসনটিতে জমজমাট লড়াই হবে। দুই ফুলের ভোটের প্রচারে বাক্যবাণ,তীব্র কটাক্ষ একেবারে ব্যক্তিগত পর্যায়ে এসে ঠেকেছে। কেউ কাউকে এক ইঞ্চি জমি ছাড়তে নারাজ।
বাঁকুড়া জেলার বিষ্ণুপুর লোকসভা আসনে ৬ দফায় অর্থাৎ আগামী ২৫ মে ভোট গ্রহণ হবে। ২০২৪ লোকসভা আসনটিতে বিজেপি প্রার্থী সৌমিত্র খাঁ,তৃণমূল প্রার্থী সুজাতা মন্ডল, সিপিআইএম প্রার্থী শীতল কৈবর্ত ও এসইউসিআই প্রার্থী লড়াইয়ে রয়েছেন।
বিষ্ণুপুর লোকসভা আসনটি গঠিত বড়জোড়া,ওন্দা,বিষ্ণুপুর,কতুলপুর,ইন্দাস,সোনামুখী ও খণ্ডঘোষ বিধানসভা নিয়ে। ৫টি বিধানসভা এই মুহূর্তে গেরুয়া শিবিরের দখলে। বাকি ২টি বিধানসভায় তৃণমূল জয় পেয়েছে। রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা বলছেন,এই আসনটিতে মূলত লড়াই হতে চলেছে পদ্ম ও ঘাস ফুল শিবিরের মধ্যে। আকর্ষণের মধ্যে রয়েছেন দুই ফুলের দুই প্রার্থী সৌমিত্র ও সুজাতা।
একঝলকে দেখে নেওয়া যাক,গত ২০১৯ সালে এই লোকসভা আসনটির ফলাফলের চিত্রটি। বিজেপি প্রার্থী সৌমিত্র খাঁ জয়ী হয়েছিলেন ৬ লক্ষ ৫৭ হাজার ১৯ ভোট পেয়ে। তাঁর নিকটতম প্রার্থী তৃণমূলের শ্যামল সাঁতরা ভোট পেয়েছিলেন ৫ লক্ষ ৭৮ হাজার ৯৭২। ৪৬.২৫ শতাংশ ভোট পেয়ে জয়ী হয় গেরুয়া শিবির। তৃণমূল প্রার্থীর ভোট শতাংশ ছিল ৪০.৭৫। সিপিআইএম প্রার্থী সুনীল খাঁ ভোট পেয়েছিলেন ১ লক্ষ ২ হাজার ৬১৫। নারায়ণ চন্দ্র খাঁ আইএনসি প্রার্থী প্রতীকে ভোট পেয়েছিলেন ১৭ হাজার ৯৩২। এবার বিষ্ণুপুর লোকসভায় সৌমিত্র-সুজাতার ভোট প্রচার উপভোগ্য হয়ে উঠেছে তা বলাই যায়। তবে ফল কোনদিকে গড়ায় সেদিকে তাকিয়ে সবাই।
কৃষ্ণনগর লোকসভা : রানীমার জয় না ফের মহুয়া !

কৃষ্ণনগর লোকসভা আসনে চতুর্থ দফায় ভোটগ্রহণ হবে আগামী ১৩ মে। এই লোকসভা আসনটিকে ঘিরে সাধারণ মানুষ ও রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের আগ্রহ তুঙ্গে। নদিয়া জেলার এই লোকসভা আসনটিকে ঘিরে জোর চর্চা চলেছে। এই লোকসভায় ভোটযুদ্ধ একটা নতুন মাত্রা পেতে চলেছে। প্রাচীন ঐতিহ্য বহন করা এই লোকসভাটি তেহট্ট,পলাশীপাড়া,কালীগঞ্জ,নাকাশিপাড়া,চাপড়া,কৃষ্ণনগর সিটি নর্থ,কৃষ্ণনগর সিটি সাউথ বিধানসভা নিয়ে গঠিত। গত বিধানসভা নির্বাচনে
৬টি বিধানসভা আসনে জয়ী হয় তৃণমূল কংগ্রেস। ১টি বিধানসভা গেরুয়া শিবিরের দখলে যায়। এই লোকসভা আসনে মহুয়া-অমৃতার ভোট-লড়াই
আম-জনতার চর্চায় রয়েছে।
গত লোকসভায় বিজয়ী তৃণমূল প্রার্থী মহুয়া মৈত্র আবারও এই কেন্দ্রে লড়ছেন। তাঁর প্রতিপক্ষ প্রার্থী বিজেপির অমৃতা রায়। সিপিআইএম প্রার্থী হয়েছেন এস এম সাদি।

Advertise

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *